Learn How To Make Money Online

ব্লগিং করে আয়ের কথা ভাবছেন? তাহলে আজই একটি ব্লগ তৈরি করুন(Part-3)--Make Money Online


সবাইকে ভালবাসা জানিয়ে শুরু করছি ব্লগিং এর ৩য় পোস্ট । আজকে আমরা ব্লগিং শুরু করা নিয়ে আলোচনা করব। আপনারা ইতিমধ্যেই ফ্রি ব্লগিং প্লাটফর্ম ব্লগস্পট সম্পর্কে যেনে গেছেন। আজকে ব্লগস্পট নিয়েই আলোচনা করব।ব্লগার এর কিছু গুরুত্বপর্ণ ফিচার--

১) আপনি এখানে আনলিমিটেড হোস্টিং করতে পারবেন।
২) Bandwidth নিয়ে ও কোনো জামেলা নাই, তাও আনলিমিটেড।
৩) এখানে আপনি আপনার নিজের মত ডোমেইন সেটাপ দিতে পারবেন।
৪) ফটো আপলোড করার জন্য Picasa তে ১ জিবি জায়গা পাবেন।
৫) এবং আপনার ব্লগ থেকে কিছু টাকা উপার্জন করার জন্য সহজেই Adsense যোগ করতে পারবেন।
৬) যদি আপনি ভিডিও আপলোড করতে চান তাহলে Youtube এ আনলিমিটেড Storage পাবেন।

ব্লগস্পট এ ব্লগ ওপেন করতে কোন এক্সট্রা অ্যাকাউন্ট খুলতে হয়না। জিমেইল অ্যাকাউন্ট দিয়েই খুব সহজে ব্লগ খোলা যায়। আর যদি আপনার জিমেইল একাউন্ট না থাকে তাহলে  জিমেইল একাউন্ট করে নিন । কারণ আপনি একবার লগিন করেই Gmail, Blogger, Google Analytics, Google Web Master Tools, Google keyword Planner,  Adword, Adsense সবই একসাথে ব্যবহার করতে পারবেন। 

make a free blogspot blog, blogging trick

ব্লগস্পট কি?

ব্লগস্পট কি? ব্লগস্পট হল সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট গুগলের একটি ফ্রি ব্লগিং প্লাটফর্ম। বর্তমানে যতগুলো ফ্রি ব্লগ সার্ভিস আছে তার মধ্যে সেরা হল ব্লগস্পট। ব্লগস্পটের লিঙ্ক হলঃ http://www.blogger.com এখানে আপনি ফ্রিতে আপনার প্রথম ব্লগটি সুন্দরভাবে তৈরি করতে পারবেন। কোন প্রোগ্রামিং জ্ঞান ছাড়াই এখানে একটি খুব সুন্দর মানের ব্লগ তৈরি করা সম্ভব।

 ব্লগস্পট এর সুবিধাঃ

ব্লগস্পট এর মালিক গুগল চেষ্টা করে গ্রাহক কে সর্বচ্চো সুবিধা দেয়ার। আপনি ব্লগ ডিজাইনে ব্লগস্পট থেকে মোটামুটি পূর্ণ স্বাধীনতা পাবেন। ব্লগস্পটের রয়েছে বেশকিছু নিজস্ব থিম। এছাড়া ইন্টারনেটে ফ্রিতে অসংখ্য থিম পাওয়া যায়। আপনি যেকোনো একটি থিম নিয়ে ব্লগিং শুরু করে দিতে পারেন। ব্লগস্পোত এর রয়েছে হাই পারফর্মেন্স সার্ভার। আর সবচেয়ে বড় কথা হল এটি এসইও ফ্রেন্ডলি ব্লগিং প্লাটফর্ম, ফলে গুগল থেকে আপনি পাবেন অসংখ্য ভিজিটর। অনেক ব্লগ আছে যেগুলি টাকা দিয়ে তৈরি ব্লগ এর চেয়েও বেশী ভিসিটর পায়। তাই আমি আপনাদের ব্লগস্পট দিয়েই ব্লগিং শুরু করার কথা বলব। তাছাড়া অনেকে প্রথমেই টকা খরছ করতে চায় না, তাদের জন্য তো অবশ্যই ব্লগস্পট।

কেন এটি সেরা?

অনেকেই হয়ত প্রশ্ন করতে পারেন যে, কেন এটি সেরা? আমি বলব এর মালিক গুগল তাই এটি সেরা। এর ইন্টারফেস আপনার পছন্দ না হলেও এটি সেরা, কারন এর মালিক গুগল। আপনারা আবার বলতে পারেন যে গুগল বলেই সেরা? হ্যাঁ, কারন ব্লগের প্রাণই হচ্ছে ভিজিটর। আপনি যদি কোন ভিজিটর না পান, তাহলে সুন্দর ডিজাইন আপনার কোন কাজে আসবে না। গুগল ব্লগসট কে যে চোখে দেখবে অন্যান্য ফ্রি ব্লগকে নিশ্চয়ই সেই চোখে দেখবে না। ফলে ভিজিটর কিন্তু ব্লগস্পটেই বেশী পাঠাবে। আর আপনারা নিশ্চয়ই জানেন যে, গুগল ই সবচেয়ে বড় সার্চ ইঞ্জিন। তাই আগেই ভাবুন, পরে ব্লগস্পটের দিকে এলে আপনিই পিছিয়ে পরবেন। ব্লগস্পটে রয়েছে ডোমেইন পারকিং এর সুবিধা, যা অনেক জায়গাতেই নেই। আর এটি সম্পূর্ণ ফ্রি। গুগল আপনার কাছ থেকে একটি টাকা চাইবে না, বা কোন প্রকার সুবিধা দাবি করবে না। সব বিষয় চিন্তা করে বলা যায়, ফ্রি ব্লগিং প্লাটফর্ম হিসেবে ব্লগস্পটই সেরা।

এখান থেকে কি আয় করা সম্ভব?

হ্যাঁ, ব্লগস্পট এর আরেকটি সুবিধা হল এখান থেকে প্রচুর আয় করা সম্ভব। আপনার ব্লগ যদি গুনগত মান-সম্মত হয়, তাহলে আপনি গুগল এর কাছে বিজ্ঞাপনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। তাছাড়া আপনি অন্যান্য বিজ্ঞাপন সংস্থা থেকেও এখানে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। এজন্য গুগল আপনার কাছ থেকে টাকার ভাগ চাবে না। অনেক ব্লগার আছেন যারা ব্লগস্পট এ ব্লগিং করেই মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করছেন। আমার এক ফ্রেন্ড আছে, যে গত মাসে ৬০ হাজার টাকা আয় করেছে তার দুইটা ব্লগস্পট ব্লগ থেকে। তাই আপনাদের বলব ব্লগস্পটে অন্যান্য প্রফেশনাল ব্লগ এর মতই আয় করা যায়।

কিছু অসুবিধাঃ

সব কিছুতেই একটু অসুবিধা থাকে, তারপরে এটি ফ্রি সার্ভিস। এর অসুবিধা গুলি নিম্নে দেয়া হলঃ
  • এখানে আপনি সহজেই অন্যদের লেখার সুযোগ দিতে পারবেন না।
  • এখানে আপনি ওয়ার্ডপ্রেসের মত সম্পূর্ণ স্বাধীনতা পাবেন না।
  • এখানে গুগলের নির্ধারিত নিয়ম-কানুন গুলি মেনে চলতে হবে।
  • নিয়ম ভঙ্গ করলে আপনাকে ব্যান করা হতে পারে।
  • সম্পূর্ণ প্রোগ্রামিং সুবিধা পাবেন না।
  • ব্লগিং ইন্টারফেস পরিবর্তন করতে পারবেন না।
  • আপনি শুধুমাত্র ডিজাইন টাই কাস্টমাইজ করতে পারবেন।
এর পরেও ব্লগস্পটই সেরা, কারন অন্যান্য জায়গায় এর চেয়েও বেশী অসুবিধা আপনার জন্য অপেক্ষা করছে।

একাউন্ট তৈরিঃ 

ব্লগস্পটে ব্লগ খুলতে আপনাকে প্রথমে ব্লগস্পট এর হোমপেজ http://blogger.com এ যেতে হবে।

best blogging trick, make a free blog


এখানে আপনার Gmail আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে সাইন-ইন করুন। Gmail আইডি না থাকলে তৈরি করে নিন।
কিছুক্ষণের মধ্যে আপনি ব্লগস্পট ড্যাশবোর্ড এ প্রবেশ করবেন।

best blogging trick, make a free blog



এখানে আপনার ব্লগ গুলির লিস্ট দেখাবে। নতুন ব্লগ খুলতে New Blog এ ক্লিক করুন।


এখন আপনি নতুন ব্লগ খোলার একটি ফর্ম পাবেন।


best blogging trick, make a free blog


 আপনার নতুন ব্লগের ইনফরমেশন (যেমনঃ টাইটেল, এড্রেস, টেমপ্লেট) গুলি দিন। এড্রেস এর সময় একটা এড্রেস দিন । Not available দেখালে আরেকটি দিয়ে চেস্টা করুন। এখন Create blog এ ক্লিক করুন।

    এখন ব্লগ লিস্টে আপনি আপনার ব্লগটি দেখতে পারবেন।

best blogging trick, make a free blog


আপনার ব্লগ এর নামের উপর ক্লিক দিন। এখন আপনাকে আপনার ব্লগ এর কনট্রোল প্যানেল এ নিয়ে যাবে। এখান থেকেই আপনি আপনার ব্লগটি নিয়ন্ত্রন করবেন।

best blogging trick, make a free blog


এখানে আপনি আপনার ব্লগের এনালাইটিক্স ট্রাফিক দেখতে পাবেন। আর ব্লগ কিন্তু ইতিমধ্যেই তৈরি হয়ে গেছে। যেহেতু আপনার ব্লগে কোন পোস্ট নেই, সেহেতু আপনি আপনার ব্লগটি পরীক্ষা করতে পারছেন না। তাই পোস্ট করতে New Post এ ক্লিক করুন।

এখন পোস্ট এডিটর ওপেন হবে।

best blogging trick, make a free blog


এখানে আপনি আপনার পোস্টটি লিখুন। আশা করি, কিভাবে লিখবেন এটা বলে দিতে হবে না। পোস্ট লিখার পরে Publish বাটনে ক্লিক করুন।

Publish বাটনে ক্লিক করার পরে আপনার সামনে পোস্ট মেনু আসবে।

best blogging trick, make a free blog


এখানে আপনি আপনার পোস্ট এর লিস্টগুলি দেখতে পাবেন। এখন আপনি আপনার ব্লগটি দেখতে পারেন। আপনার ব্লগটি দেখতে আপনার ব্লগ এর এড্রেস এ ঢুকুন (ব্লগ খোলার সময় যেটা দিয়েছিলেন) অথবা, View blog এ ক্লিক করুন। নতুন উইন্ডোতে আপনার ব্লগটি ওপেন হবে।

best blogging trick, make a free blog


হয়ে গেল আপনার ব্লগ। আপনার এখন একমাত্র কাজ বেশী বেশী পোস্ট করা। কারন, যত বেশী পোস্ট তত বেশী ভিজিটর - যত বেশী ভিজিটর তত বেশী টাকা।

কি ভাই ব্লগতো তৈরি হলো । এইবার ব্লগকে সুন্দর করার জন্য কাস্টমাইজেশন করতে হবে না? হা । ব্লগ কাস্টমাইজেশন নিয়ে লিখছি পরের পোস্ট । সেই প্রজন্ত আমার সাথেই থাকুন ।

Tags-- how to earn money online, online earning best site, earn money online, online jobs, online earning money, make money online, blogging in bangladesh, how to make a blog in blogspot


google+

3 Comments For "ব্লগিং করে আয়ের কথা ভাবছেন? তাহলে আজই একটি ব্লগ তৈরি করুন(Part-3)--Make Money Online"

খুব সুন্দর পোস্ট এবং ইনফরমেটিভ ।
Bangla Blog

ধন্যবাদ ভাই। একটা প্রশ্ন ছিল, আমি ইংরেজিতে দুর্বল এখন যদি শুধু বাংলায় ব্লগ করি ভিজিটর কেমন পাবো?

কিছু কথাঃ

এই ব্লগের সমস্ত পোস্ট পরীক্ষিত। তারপরও কোন পোস্ট বা ব্লগ সম্পর্কে আপনার অভিযোগ, মতামত বা সাহায্যের জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন ফেসবুকের পেইজে বা গ্রুপে । আপনার সাফল্যে সহযোগিতা করতে পারলে আমরা সার্থক। আর ব্লগটি আপনার পছন্দের হলে বুকমার্ক করে ও শেয়ার করে আমাদের উৎসাহিত করুন।

Back To Top